, , ,
h9090
ব্রেকিং নিউজ
  • বরিশালে বিএনপি’র মিছিলে পুলিশের বাধা
  • বরিশালে শিক্ষকদের প্রতিবাদ সভা
  • হিজলায় এক রাতে তিন ঘরে ডাকাতি
  • উজিরপুরে সন্ধ্যা নদীতে ৩ লক্ষাধীক টাকার অবৈধ জাল আটক
  • বাকেরগঞ্জে ইয়াবাসহ আটক -১

Notice: Undefined variable: dexc in /home/barisalmail24/public_html/wp-content/themes/newspaper.bak/inc/retrive_functions.php on line 279

Notice: Undefined variable: cexc in /home/barisalmail24/public_html/wp-content/themes/newspaper.bak/inc/retrive_functions.php on line 282
Add
Tuesday, July 12, 2016 9:04 am
A- A A+ Print

ভারতে প্রবেশ করেছে ১০ জেএমবি

জামাতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশের (জেএমবি) ১০ সদস্য ভারতীয় সীমান্ত প্রবেশ করেছে জানিয়ে দেশটিকে সতর্ক করেছে ভারত। এই ১০ জেএমবি সদস্যের ছবিসহ এই বার্তা পাঠানোর পর থেকে সতর্ক অবস্থায় রয়েছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, আসাম ও মেঘালয় রাজ্য।
আসাম পুলিশের উচ্চ পর্যায়ের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে ফার্স্ট পোস্ট জানায়, জেএমবি জঙ্গিদের অনুপ্রবেশ বিষয়ক একটি চিঠি রাজ্যের পুলিশ সুপারেন্টেডেন্ট কার্যালয়ে এসেছে। দুইদিন আগে আসা এই বার্তায় সন্দেহভাজন ১০ জঙ্গির নাম দেয়া হয়েছে।
এই সকলের জঙ্গিদের সঙ্গে ঢাকায় হওয়া হামলার সম্পর্ক আছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশের গোয়েন্দা সংস্থাগুলো। তারা ভারতকে আরো জানিয়েছে, এই জঙ্গিরা (কলকাতার) উত্তরবঙ্গে থাকতে পারে। ফলে সেখানে ব্যাপকভাবে তল্লাশি চালাচ্ছে দেশটির স্থানীয় প্রশাসন।
এই বিষয়টি সামনে আসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনার পর। তিনি নির্দেশ দিয়েছিলেন, ১০ দিনের বেশি কোন শিক্ষার্থী তাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনুপস্থিত থাকলে তাদের ব্যাপারে খোঁজ নেয়ার জন্য। পুলিশ খোঁজ নিয়ে জানতে পারে এই ১০ জেএমবি কয়েক বছর ধরে তাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনুপস্থিত ছিল। এ সময় তারা অস্ত্র চালনাসহ বিভিন্ন জঙ্গি প্রশিক্ষণ নেয়।
বাংলাদেশ সরকার এই জেএমবি সদস্যদের বিষয়ে সতর্কতা জারি করে ভারতকে তাদের নাম ও ছবি প্রেরণ করেছে। এই ১০ জেএমবি হল- আশরাফ মোহাম্মদ ইসলাম (ঢাকা), এটিএম তাজউদ্দিন (লক্ষ্মীপুর), ইব্রাহিম হাসান খান (ঢাকা), জুবায়েদুর রাহিম (ঢাকা), জুনুন সিকদার, মো. বাশার জামান (ঢাকা), মো. সাইফুল্লাহ ওজাকি (সিলেট), নাজিবুল্লাহ আনসারি (চাঁপাইনবাবগঞ্জ), তামিম আহমেদ চৌধুরি (সিলেট) এবং বাদ্দার জুনায়েক খান (সিলেট)।
আসাম ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক লুরিঞ্জিওতি গোজি জানান, মেঘালয়ে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের বেশ কিছু অংশে কাঁটাতারের বেড়া নেই। ধারণা করা হচ্ছে এখান দিয়েই জঙ্গিরা ভারতে অনুপ্রবেশ করেছে।
এই বেড়া-হীন সীমান্ত দুই দেশের জন্যই বড় ধরণের হুমকি হয়ে দেখা দিচ্ছে বলে জানিয়েছে আসাম পুলিশ। কিছুদিন আগে আসাম থেকে একটি জেএমবি ট্রেনিং ক্যাম্প ধ্বংস করেছে রাজ্য পুলিশ। তারা জানিয়েছে, আসামের স্থানীয় তরুণদের সেখানে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছিল।
আসাম পুলিশ জানায়, বাংলাদেশী জঙ্গিরা সেখানে আক্রমণ চালিয়ে এই বর্ডার দিয়ে ভারতে প্রবেশ করে আশ্রয় নিচ্ছে। অন্যদিকে ভারতে বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালানোর পর এখানকার জঙ্গিরা আশ্রয় নিচ্ছে বাংলাদেশে। ফার্স্টপোস্ট।
[fbcomments url="http://barisalmail24.com/archives/13001" count="on" num="5" countmsg="Comments!"]
 বরিশাল মেইল২৪.কম

ভারতে প্রবেশ করেছে ১০ জেএমবি

Tuesday, July 12, 2016 9:04 am
জামাতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশের (জেএমবি) ১০ সদস্য ভারতীয় সীমান্ত প্রবেশ করেছে জানিয়ে দেশটিকে সতর্ক করেছে ভারত। এই ১০ জেএমবি সদস্যের ছবিসহ এই বার্তা পাঠানোর পর থেকে সতর্ক অবস্থায় রয়েছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, আসাম ও মেঘালয় রাজ্য।
আসাম পুলিশের উচ্চ পর্যায়ের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে ফার্স্ট পোস্ট জানায়, জেএমবি জঙ্গিদের অনুপ্রবেশ বিষয়ক একটি চিঠি রাজ্যের পুলিশ সুপারেন্টেডেন্ট কার্যালয়ে এসেছে। দুইদিন আগে আসা এই বার্তায় সন্দেহভাজন ১০ জঙ্গির নাম দেয়া হয়েছে।
এই সকলের জঙ্গিদের সঙ্গে ঢাকায় হওয়া হামলার সম্পর্ক আছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশের গোয়েন্দা সংস্থাগুলো। তারা ভারতকে আরো জানিয়েছে, এই জঙ্গিরা (কলকাতার) উত্তরবঙ্গে থাকতে পারে। ফলে সেখানে ব্যাপকভাবে তল্লাশি চালাচ্ছে দেশটির স্থানীয় প্রশাসন।
এই বিষয়টি সামনে আসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনার পর। তিনি নির্দেশ দিয়েছিলেন, ১০ দিনের বেশি কোন শিক্ষার্থী তাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনুপস্থিত থাকলে তাদের ব্যাপারে খোঁজ নেয়ার জন্য। পুলিশ খোঁজ নিয়ে জানতে পারে এই ১০ জেএমবি কয়েক বছর ধরে তাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনুপস্থিত ছিল। এ সময় তারা অস্ত্র চালনাসহ বিভিন্ন জঙ্গি প্রশিক্ষণ নেয়।
বাংলাদেশ সরকার এই জেএমবি সদস্যদের বিষয়ে সতর্কতা জারি করে ভারতকে তাদের নাম ও ছবি প্রেরণ করেছে। এই ১০ জেএমবি হল- আশরাফ মোহাম্মদ ইসলাম (ঢাকা), এটিএম তাজউদ্দিন (লক্ষ্মীপুর), ইব্রাহিম হাসান খান (ঢাকা), জুবায়েদুর রাহিম (ঢাকা), জুনুন সিকদার, মো. বাশার জামান (ঢাকা), মো. সাইফুল্লাহ ওজাকি (সিলেট), নাজিবুল্লাহ আনসারি (চাঁপাইনবাবগঞ্জ), তামিম আহমেদ চৌধুরি (সিলেট) এবং বাদ্দার জুনায়েক খান (সিলেট)।
আসাম ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক লুরিঞ্জিওতি গোজি জানান, মেঘালয়ে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের বেশ কিছু অংশে কাঁটাতারের বেড়া নেই। ধারণা করা হচ্ছে এখান দিয়েই জঙ্গিরা ভারতে অনুপ্রবেশ করেছে।
এই বেড়া-হীন সীমান্ত দুই দেশের জন্যই বড় ধরণের হুমকি হয়ে দেখা দিচ্ছে বলে জানিয়েছে আসাম পুলিশ। কিছুদিন আগে আসাম থেকে একটি জেএমবি ট্রেনিং ক্যাম্প ধ্বংস করেছে রাজ্য পুলিশ। তারা জানিয়েছে, আসামের স্থানীয় তরুণদের সেখানে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছিল।
আসাম পুলিশ জানায়, বাংলাদেশী জঙ্গিরা সেখানে আক্রমণ চালিয়ে এই বর্ডার দিয়ে ভারতে প্রবেশ করে আশ্রয় নিচ্ছে। অন্যদিকে ভারতে বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালানোর পর এখানকার জঙ্গিরা আশ্রয় নিচ্ছে বাংলাদেশে। ফার্স্টপোস্ট।
সম্পাদকঃ মোঃ জিহাদ রানা।
গির্জ্জা মহল্লা,বরিশাল।
মোবাইল: ০১৭৫৭৮০৭৩৮৩
ইমেইল : barisalmail24@gmail.com
বরিশালের একটি ২৪/৭ অনলাইন নিউজ মিডিয়া।