, , ,
h9090
ব্রেকিং নিউজ
  • বরিশালে বিএনপি’র মিছিলে পুলিশের বাধা
  • বরিশালে শিক্ষকদের প্রতিবাদ সভা
  • হিজলায় এক রাতে তিন ঘরে ডাকাতি
  • উজিরপুরে সন্ধ্যা নদীতে ৩ লক্ষাধীক টাকার অবৈধ জাল আটক
  • বাকেরগঞ্জে ইয়াবাসহ আটক -১

Notice: Undefined variable: dexc in /home/barisalmail24/public_html/wp-content/themes/newspaper.bak/inc/retrive_functions.php on line 279

Notice: Undefined variable: cexc in /home/barisalmail24/public_html/wp-content/themes/newspaper.bak/inc/retrive_functions.php on line 282
Add
Saturday, April 23, 2016 7:30 pm
A- A A+ Print

স্থগিত হতে পারে ঝালকাঠি জেলা ছাত্রলীগের কমিটি

পিনাকী দাস ঝালকাঠি ॥ ঝালকাঠি জেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হঠাৎ করে অশান্ত হওয়ায় দু’গ্রুপে পাল্টা হামলার ঘটনায় মামলা, সভাপতি আটকের ঘটনায় স্থগিত হতে পারে জেলা ছাত্রলীগের কমিটি। দলীয় দায়িত্বশীল সূত্রে এমনটাই জানাগেছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম শফিককে আটকের পর তার মুক্তির দাবিতে রাত ৯ টায় মিছিল বের করে ছাত্রলীগের একাংশের নেতাকর্মীরা। সরকারী দলে থেকে সরকারের বিরুদ্ধে মিছিল বের করায় ৪ ছাত্রলীগ নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এতেও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা শান্ত না হয়ে ঝটিকা মিছিল করতে থাকে। পুলিশ ধাওয়া করলে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে শফিকের মুক্তির দাবিতে মিছিল করতে থাকে। শহরের থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আঃ রকিব, সহকারী পুলিশ সুপার মাহমুদ হাসানের নেতৃত্বে পুলিশের একাধিক টিম টহল দেয়।  জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির, সাংগঠনিক সম্পাদক তরুণ কর্মকার হস্তক্ষেপ করলে পরিস্থিতি শান্ত হয়। এসময় তারা মামলার সকল আসামীদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেন। শহরের শীতলাখোলা মোড়ে পুলিশ কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনাকালে অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির বলেন, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি এইচএম সোহাগ আমাকে এবং পুলিশ সুপারকে ফোন দিয়েছে। তারা সম্ভবত ঝালকাঠির কমিটিকে স্থগিত ঘোষণা দিতে পারে। আমাদের অভিভাবক শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু এমপি দেশের বাইরে থাকলেও তার সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হয়েছে। তিনি পরিস্থিতি শান্ত রাখতে যা করা দরকার তাই করতে বলেছেন। ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতিও পরিস্থিতি শান্ত রাখতে বলে শীঘ্রই সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছেন। উল্লেখ্য, বুধবার বিকেল সোয়া ৩ টায় শহরের কামারপট্টি রোডে ঝালকাঠি সদর থানা ছাত্রলীগের সভাপতি রফিকুর রহমান রাহাতের উপরে হামলা করে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম শফিক ও তার দলবল। এসময় তাকে কুপিয়ে আহত করা হয়। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রফিকুর রহমান রাহাত বাদি  হয়ে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ এনে শফিকুল ইসলাম শফিকসহ নামধারী আট জন ও অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জনকে আসামী করে ঝালকাঠি থানায় মামলা দায়ের করেন। অপরদিকে গত ১৩ এপ্রিল জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম শফিকের ভাড়াটিয়া মোবাইল সামগ্রীর দোকানে হামলা চালিয়ে রিপন দেবনাথকে কুপিয়ে জখম করে সদর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রফিকুর রহমান রাহাত। এ ঘটনায় ১৪ এপ্রিল রাতে উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আজিমসহ  নামধারী ৮ জন ও অজ্ঞাত আরো প্রায় ৭/৮ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।  এর পূর্বে পৃথক দু’টি ঘটনায় জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি লিমন নকিবের বিরুদ্ধে পর্ণোগ্রাফি মামলায় কারাগারে রয়েছে। আরেক সহসভাপতি ইব্রাহিম খলিল রাজুর নামেও আদালতে নারী নির্যাতন মামলা হওয়ায় তাদেরকে জেলা ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে [fbcomments url="http://barisalmail24.com/archives/12088" count="on" num="5" countmsg="Comments!"]
 বরিশাল মেইল২৪.কম

স্থগিত হতে পারে ঝালকাঠি জেলা ছাত্রলীগের কমিটি

Saturday, April 23, 2016 7:30 pm

পিনাকী দাস ঝালকাঠি ॥ ঝালকাঠি জেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হঠাৎ করে অশান্ত হওয়ায় দু’গ্রুপে পাল্টা হামলার ঘটনায় মামলা, সভাপতি আটকের ঘটনায় স্থগিত হতে পারে জেলা ছাত্রলীগের কমিটি। দলীয় দায়িত্বশীল সূত্রে এমনটাই জানাগেছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম শফিককে আটকের পর তার মুক্তির দাবিতে রাত ৯ টায় মিছিল বের করে ছাত্রলীগের একাংশের নেতাকর্মীরা। সরকারী দলে থেকে সরকারের বিরুদ্ধে মিছিল বের করায় ৪ ছাত্রলীগ নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এতেও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা শান্ত না হয়ে ঝটিকা মিছিল করতে থাকে। পুলিশ ধাওয়া করলে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে শফিকের মুক্তির দাবিতে মিছিল করতে থাকে। শহরের থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আঃ রকিব, সহকারী পুলিশ সুপার মাহমুদ হাসানের নেতৃত্বে পুলিশের একাধিক টিম টহল দেয়।  জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির, সাংগঠনিক সম্পাদক তরুণ কর্মকার হস্তক্ষেপ করলে পরিস্থিতি শান্ত হয়। এসময় তারা মামলার সকল আসামীদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেন। শহরের শীতলাখোলা মোড়ে পুলিশ কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনাকালে অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির বলেন, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি এইচএম সোহাগ আমাকে এবং পুলিশ সুপারকে ফোন দিয়েছে। তারা সম্ভবত ঝালকাঠির কমিটিকে স্থগিত ঘোষণা দিতে পারে। আমাদের অভিভাবক শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু এমপি দেশের বাইরে থাকলেও তার সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হয়েছে। তিনি পরিস্থিতি শান্ত রাখতে যা করা দরকার তাই করতে বলেছেন। ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতিও পরিস্থিতি শান্ত রাখতে বলে শীঘ্রই সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছেন। উল্লেখ্য, বুধবার বিকেল সোয়া ৩ টায় শহরের কামারপট্টি রোডে ঝালকাঠি সদর থানা ছাত্রলীগের সভাপতি রফিকুর রহমান রাহাতের উপরে হামলা করে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম শফিক ও তার দলবল। এসময় তাকে কুপিয়ে আহত করা হয়। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রফিকুর রহমান রাহাত বাদি  হয়ে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ এনে শফিকুল ইসলাম শফিকসহ নামধারী আট জন ও অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জনকে আসামী করে ঝালকাঠি থানায় মামলা দায়ের করেন। অপরদিকে গত ১৩ এপ্রিল জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম শফিকের ভাড়াটিয়া মোবাইল সামগ্রীর দোকানে হামলা চালিয়ে রিপন দেবনাথকে কুপিয়ে জখম করে সদর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রফিকুর রহমান রাহাত। এ ঘটনায় ১৪ এপ্রিল রাতে উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আজিমসহ  নামধারী ৮ জন ও অজ্ঞাত আরো প্রায় ৭/৮ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।  এর পূর্বে পৃথক দু’টি ঘটনায় জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি লিমন নকিবের বিরুদ্ধে পর্ণোগ্রাফি মামলায় কারাগারে রয়েছে। আরেক সহসভাপতি ইব্রাহিম খলিল রাজুর নামেও আদালতে নারী নির্যাতন মামলা হওয়ায় তাদেরকে জেলা ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে

সম্পাদকঃ মোঃ জিহাদ রানা।
গির্জ্জা মহল্লা,বরিশাল।
মোবাইল: ০১৭৫৭৮০৭৩৮৩
ইমেইল : barisalmail24@gmail.com
বরিশালের একটি ২৪/৭ অনলাইন নিউজ মিডিয়া।